সাতক্ষীরায় কন্যাশিশুকে ধর্ষনের অভিযোগে কিশোর গ্রেপ্তার

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি :: সাতক্ষীরায় ৫ বছরের কন্যাশিশুকে ধর্ষনের অভিযোগে এক কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার বালিথা এল্লারচর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দেলোয়ার হুসেন জানান, ওই কন্যা শিশুর বাবা বাদী অভিযুক্ত কিশোরের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন। গ্রেপ্তারকৃত অভিযুক্ত কিশোরের নাম বায়েজিদ হোসেন (১৬)। সে বালিথা এল্লারচর গ্রামের মান্নান গাজীর ছেলে।
মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে ওসি দেলোয়ার জানান, প্রতিবেশী কিশোর বায়োজিদ প্রায়ই ওই কন্যা শিশুর বাড়িতে যাতায়াত করতো এবং তার সাথে খেলাধূলা করতো। কন্যা শিশুটির বাবা রাজমিস্ত্রীর কাজ করায় তিনি প্রতিদিন সকালে বাড়ি থেকে বেরিয়ে কাজে যান। মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে শিশশুটির মা সংসারের কাজে ব্যস্ত থাকার সুবাদে কিশোর বায়েজিদ শিশুটি বাড়ির পাশে খেলা করার সময় তাকে টাকা ও খাবার কিনে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে বালিথা এল্লারচর কবরস্থানের বাগানের মধ্যে নিয়ে তার মুখ চেপে ধরে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় তার আর্তচিৎকারে স্থানীয় লোকজন ধর্ষক কিশোর বায়োজিদ ধাওয়া করলেও সে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। এ ঘটনায় ওই কিশোরের বিরুদ্ধে বুধবার সকালে মামলা দায়েরের পর পুলিশ দুপুরে পলাতক বায়েজিদকে গ্রেপ্তার করে।

এদিকে, নির্যাতিতা ওই কন্যা শিশুটি বর্তমানে আশংকাজনক অবস্থায় সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
ওসি দেলোয়ার বলেন, গ্রেপ্তারকৃত শিশুকে বিকেলে সাতক্ষীরা শিশু আদালতে হাজির করা হলে আদালতের বিচারক তাকে মামলার তদন্ত সমাপ্ত না হওয়া পর্যন্ত শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র (বালক) যশোরে আটক রাখার আদেশ দেন। সে মোতাবেক তাকে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র যশোরে পাঠানো হয়েছে। #