বাংলাদেশের প্রাথমিক দলে এলিটা

বাংলাদেশ ফুটবলে পরিচিত নাম এলিটা কিংসলে। নাইজেরিয়ান এই স্ট্রাইকার বৈবাহিক সূত্রে পেয়েছেন বাংলাদেশের নাগরিকত্ব, পাসপোর্ট হওয়ার পর খেলেছেন বসুন্ধরা কিংসের হয়ে, পেয়েছেন বাংলাদেশি হিসেবে গোল। নাগরিকত্ব বদলানো কিংসলের স্বপ্ন লাল-সবুজের জার্সিতে ফুটবল খেলা। আপাতত তার স্বপ্নের অপেক্ষা বাড়াচ্ছে ফিফার অনুমোদন। একই কারণে ছিলেন না বসুন্ধরার হয়ে এএফসি কাপেও। তবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) আশাবাদী এক সপ্তাহের মাঝেই তার ছাড়পত্র পাওয়ার। সেকারণেই আগামী মাসের শুরুতে মালদ্বীপে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে রাখা হয়েছে এলিটাকে। জাতীয় দলের প্রাথমিক ৩৫ জনের তালিকায় প্রথমবারের মতো থাকবেন এই স্ট্রাইকার। এবার অপেক্ষা ফিফার অনুমোদন। কিংসলেকে দলে রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম বলেন, ‘সাফের জন্য পাঠানো ৩৫ জনের তালিকায় কিংসলির নাম আছে। আমরা তার নাম জমা দিয়ে রেখেছি, যেন ফিফার ছাড়পত্র পেলে আর কোচের প্রয়োজন হলে তাঁকে নিতে পারেন। এই সপ্তাহের মধ্যে ছাড়পত্র পাওয়ার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী।’ আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুরু হবে বাংলাদেশ দলের অনুশীলন। জামাল-তারিকদের কোচ জেমি ডে অবশ্য এলিটাকে সাফের পরিকল্পনায় রেখেই ছক কষছে। সম্প্রতি বাফুফে প্রধানের সঙ্গে মিটিংয়ের পর এলিটাকে দলে পেতে আশাবাদী ছিলেন জেমি। জানিয়েছিলেন, ফিফার ছাড়পত্র পেলে বাংলাদেশের হয়ে খেলতে বাধা থাকবে না কিংসলের। বাংলাদেশ জাতীয় দল সাধারণত ভোগে গোল খরায়। গোলের কারণে প্রায় অনেক ম্যাচই নিজেদের পক্ষে ঘোরাতে পারেননি জামালরা। তবে ৩১ বছর বয়সী বসুন্ধরার ফরোয়ার্ড কিংসে দেশের হয়ে খেলে সেই গোলখরা কাটাবেন এমন আশা অনেকের। তবে বাংলাদেশি এলিটাকে লাল-সবুজের জার্সিতে দেখতে অপেক্ষায় রাখছে ফিফার ছাড়পত্র। যা মিলবে খুব দ্রুত।
বাংলাদেশ ফুটবলে পরিচিত নাম এলিটা কিংসলে। নাইজেরিয়ান এই স্ট্রাইকার বৈবাহিক সূত্রে পেয়েছেন বাংলাদেশের নাগরিকত্ব, পাসপোর্ট হওয়ার পর খেলেছেন বসুন্ধরা কিংসের হয়ে, পেয়েছেন বাংলাদেশি হিসেবে গোল। নাগরিকত্ব বদলানো কিংসলের স্বপ্ন লাল-সবুজের জার্সিতে ফুটবল খেলা। আপাতত তার স্বপ্নের অপেক্ষা বাড়াচ্ছে ফিফার অনুমোদন। একই কারণে ছিলেন না বসুন্ধরার হয়ে এএফসি কাপেও। তবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) আশাবাদী এক সপ্তাহের মাঝেই তার ছাড়পত্র পাওয়ার। সেকারণেই আগামী মাসের শুরুতে মালদ্বীপে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে রাখা হয়েছে এলিটাকে। জাতীয় দলের প্রাথমিক ৩৫ জনের তালিকায় প্রথমবারের মতো থাকবেন এই স্ট্রাইকার। এবার অপেক্ষা ফিফার অনুমোদন। কিংসলেকে দলে রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম বলেন, ‘সাফের জন্য পাঠানো ৩৫ জনের তালিকায় কিংসলির নাম আছে। আমরা তার নাম জমা দিয়ে রেখেছি, যেন ফিফার ছাড়পত্র পেলে আর কোচের প্রয়োজন হলে তাঁকে নিতে পারেন। এই সপ্তাহের মধ্যে ছাড়পত্র পাওয়ার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী।’ আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুরু হবে বাংলাদেশ দলের অনুশীলন। জামাল-তারিকদের কোচ জেমি ডে অবশ্য এলিটাকে সাফের পরিকল্পনায় রেখেই ছক কষছে। সম্প্রতি বাফুফে প্রধানের সঙ্গে মিটিংয়ের পর এলিটাকে দলে পেতে আশাবাদী ছিলেন জেমি। জানিয়েছিলেন, ফিফার ছাড়পত্র পেলে বাংলাদেশের হয়ে খেলতে বাধা থাকবে না কিংসলের। বাংলাদেশ জাতীয় দল সাধারণত ভোগে গোল খরায়। গোলের কারণে প্রায় অনেক ম্যাচই নিজেদের পক্ষে ঘোরাতে পারেননি জামালরা। তবে ৩১ বছর বয়সী বসুন্ধরার ফরোয়ার্ড কিংসে দেশের হয়ে খেলে সেই গোলখরা কাটাবেন এমন আশা অনেকের। তবে বাংলাদেশি এলিটাকে লাল-সবুজের জার্সিতে দেখতে অপেক্ষায় রাখছে ফিফার ছাড়পত্র। যা মিলবে খুব দ্রুত।

বাংলাদেশ ফুটবলে পরিচিত নাম এলিটা কিংসলে। নাইজেরিয়ান এই স্ট্রাইকার বৈবাহিক সূত্রে পেয়েছেন বাংলাদেশের নাগরিকত্ব, পাসপোর্ট হওয়ার পর খেলেছেন বসুন্ধরা কিংসের হয়ে, পেয়েছেন বাংলাদেশি হিসেবে গোল। নাগরিকত্ব বদলানো কিংসলের স্বপ্ন লাল-সবুজের জার্সিতে ফুটবল খেলা। আপাতত তার স্বপ্নের অপেক্ষা বাড়াচ্ছে ফিফার অনুমোদন। একই কারণে ছিলেন না বসুন্ধরার হয়ে এএফসি কাপেও। তবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) আশাবাদী এক সপ্তাহের মাঝেই তার ছাড়পত্র পাওয়ার।

সেকারণেই আগামী মাসের শুরুতে মালদ্বীপে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে রাখা হয়েছে এলিটাকে। জাতীয় দলের প্রাথমিক ৩৫ জনের তালিকায় প্রথমবারের মতো থাকবেন এই স্ট্রাইকার। এবার অপেক্ষা ফিফার অনুমোদন।

কিংসলেকে দলে রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম বলেন, ‘সাফের জন্য পাঠানো ৩৫ জনের তালিকায় কিংসলির নাম আছে। আমরা তার নাম জমা দিয়ে রেখেছি, যেন ফিফার ছাড়পত্র পেলে আর কোচের প্রয়োজন হলে তাঁকে নিতে পারেন। এই সপ্তাহের মধ্যে ছাড়পত্র পাওয়ার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী।’

আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুরু হবে বাংলাদেশ দলের অনুশীলন। জামাল-তারিকদের কোচ জেমি ডে অবশ্য এলিটাকে সাফের পরিকল্পনায় রেখেই ছক কষছে। সম্প্রতি বাফুফে প্রধানের সঙ্গে মিটিংয়ের পর এলিটাকে দলে পেতে আশাবাদী ছিলেন জেমি। জানিয়েছিলেন, ফিফার ছাড়পত্র পেলে বাংলাদেশের হয়ে খেলতে বাধা থাকবে না কিংসলের।

বাংলাদেশ জাতীয় দল সাধারণত ভোগে গোল খরায়। গোলের কারণে প্রায় অনেক ম্যাচই নিজেদের পক্ষে ঘোরাতে পারেননি জামালরা। তবে ৩১ বছর বয়সী বসুন্ধরার ফরোয়ার্ড কিংসে দেশের হয়ে খেলে সেই গোলখরা কাটাবেন এমন আশা অনেকের। তবে বাংলাদেশি এলিটাকে লাল-সবুজের জার্সিতে দেখতে অপেক্ষায় রাখছে ফিফার ছাড়পত্র। যা মিলবে খুব দ্রুত।