‘ফোর্বস’-এর তালিকায় ৯ বাংলাদেশি তরুণ

নিউজথ্রি :: ৯ বাংলাদেশি   বিখ্যাত মার্কিন ম্যাগাজিন ‘ফোর্বস’-এর এশিয়ার ৩০ বছরের কম বয়সী উদ্যোক্তা ও সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখাদের (চেঞ্জমেকার) তালিকায় এ বছর প্রথমবারের মতো জায়গা করে নিয়েছেন ।
মঙ্গলবার ‘ফোর্বস’ ২০২১ সালের এশীয় অঞ্চলের ৩০০ তরুণের একটি তালিকা প্রকাশ করে।  বাংলাদেশের এই নয় তরুণের নাম উঠে এসেছে তাতেই।

ফোর্বস ২০১১ সাল থেকে এই তালিকা করছে ।  মোট ৯ জন বাংলাদেশি ২০১৬ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত তাদের অসামান্য কাজের জন্য এই তালিকায় যুক্ত হয়েছেন। এবারের তালিকায় থাকা বাংলাদেশিরা প্রযুক্তি উদ্যোক্তা, সামাজিক প্রভাব, খুচরা ও ই-বাণিজ্যে অবদান রাখায় তালিকাভুক্ত হয়েছেন।

এই ৯ বাংলাদেশি হলেন, স্টার্টআপ ক্র্যামস্ট্যাকের প্রতিষ্ঠাতা মীর সাকিব (২৮), আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স বা এআই-ভিত্তিক উদ্যোগ ‘গেজ টেকনোলজিসের প্রতিষ্ঠাতা শেহজাদ নূর তাওস (২৪) ও মোতাসিম বীর রহমান (২৬), ।

 এনজিও অ্যাওয়ারনেস ৩৬০-এর (কুয়ালালামপুর-ভিত্তিক) প্রতিষ্ঠাতা শোমী হাসান চৌধুরী (২৬) এবং রিজভি আরেফিন (২৬)।  এই এনজিওর বর্তমানে ২৩টি দেশে দেড় হাজার স্বেচ্ছাসেবক রয়েছেন।তাঁরা হাত ধোয়া, জল-পরিস্রাবণ, স্যানিটেশনসহ ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিষয়ক প্রচার চালাচ্ছেন ।

এ ছাড়াও রয়েছেন হাইড্রোকো প্লাসের প্রতিষ্ঠাতা রিজভানা হৃদিতা (২৮) ও মো. জাহিন রোহান রাজীন (২২), অভিযাত্রিক ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা আহমেদ ইমতিয়াজ জামি (২৭),  ও পিকাবোর সহপ্রতিষ্ঠাতা মোরিন তালুকদার (২৭)।

 গত বছর ফোর্বসের এশিয়ার ৩০ বছরের কম বয়সী উদ্যোক্তা ও সমাজ পরিবর্তনকারী (চেঞ্জমেকার) তালিকায় ছিলেন বাংলাদেশের রাবা খান ও ইশরাত করিম। ফোবর্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, রাবা খান সমাজের নানা বিষয়ে ব্যঙ্গাত্মক ভিডিও অনলাইনে প্রকাশ করে সুপরিচিত হয়েছেন। আর  আমাল ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে ইশরাত করিম দরিদ্র মানুষের সহায়তায় নানা কাজ করেন।#