ত্রুটির কারণে দুই লাখ গাড়ি ফিরিয়ে নেবে মারুতি

মারুতি সুজুকি ইন্ডিয়া লিমিটেড ভারতের অন্যতম বৃহত্তম গাড়ি প্রস্তুতকারক। সাশ্রয়ী মূল্যে এবং বিলাসবহুল গাড়ি উৎপাদন করে থাকে প্রতিষ্ঠানটি। ক্রেতাদের স্বার্থে নিজেদের সুনাম অক্ষুণ্ন রাখা এবং প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থাকাই মারুতির উদ্দেশ্য। সম্প্রতি বৈদ্যুতিক ত্রুটি সারাইয়ের জন্য প্রায় দুই লাখ গাড়ি ফেরত চেয়ে পাঠাল মারুতি সুজুকি ইন্ডিয়া। কোনও ত্রুটি সারাইয়ের জন্য এই প্রথম এত বেশি সংখ্যায় গাড়ি ফেরত নিচ্ছে সংস্থাটি।

২০১৮ সালের ৪ মে থেকে ২০২০ সালের ২৭ অক্টোবরের মধ্যে তৈরি হওয়া সিয়াজ, এর্তিগা, ভিতারা ব্রেজা, এস-ক্রস এবং এক্সএল৬ মডেলের পেট্রল চালিত গাড়ির বৈদ্যুতিক ত্রুটি সারাইয়ের জন্য গ্রাহকদের সঙ্গে যোগাযোগ করবে মারুতি।

সংস্থার এক কর্মকর্তা জানান, ১ লাখ ৮১ হাজার ৭৫৪টি গাড়ি সম্পূর্ণ নিখরচায় ত্রুটি সারিয়ে গাড়ি সংশ্লিষ্ট গ্রাহকের কাছে ফের পৌঁছে দেওয়া হবে। মারুতির সার্ভিস সেন্টারগুলো এই যোগাযোগের কাজ করবে। গ্রাহকরা তাদের নিকটবর্তী মারুতি সার্ভিস সেন্টারে ত্রুটি সারাইয়ের জন্য গাড়ি পাঠাতে পারবেন।

গাড়ির ত্রুটি সারাই করা হবে না তা বদলে দেওয়া হবে প্রশ্ন করা হলে তার জবাব, গাড়ি সংস্থাগুলো ত্রুটি সারাই করেই তা ফেরত দেয়। মারুতিও তার ব্যতিক্রম নয়। তিনি জানান, আপাতত ত্রুটি সারাই করে ফেরত দেওয়ার কথাই বিবেচনা করা হয়েছে।

নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে এই ত্রুটি সারাইয়ের কাজ শুরু হবে। তবে, এর মধ্যে উল্লিখিতি মডেলের গাড়ির মালিকদের জলমগ্ন এলাকায় গাড়ি না চালানোর পরামর্শ দিয়েছে মারুতি। কেননা, সে ক্ষেত্রে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার একটা সম্ভাবনা থেকে যায় বলেই মারুতি মনে করছে।

সাধারণের সুরক্ষা ক্ষুণ্ণ করতে পারে এমন কোনও ত্রুটি গ্রাহকদের থেকে নির্দিষ্ট সংখ্যক অভিযোগ পাওয়া গেলে ত্রুটিযুক্ত গাড়ি সারিয়ে দেওয়া গত এপ্রিল থেকে বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্র।

এর আগে ২০২০ সালের জুলাই মাসে ওয়াগনআর এবং ব্যালেনো মডেলের ১.৩৫ লাখ গাড়ি ত্রুটি সারাইয়ের জন্য ফেরত চেয়ে পাঠিয়েছিল মারুতি।

ত্রুটি সারাইয়ের জন্য দেশে এখন পর্যন্ত সব থেকে বেশি সংখ্যক গাড়ি ফেরত চেয়ে পাঠিয়েছে ফোক্সভাগেন ও স্কোদা। ২০১৬ সালে সফ্টওয়্যার আপডেটের

জন্য ২.৮৫ লাখ গাড়ি ফেরত চেয়ে পাঠানো হয়েছিল। দূষণ পরীক্ষায় ফাঁকি দেওয়ার জন্য তাদের গাড়িতে কম্পিউটার চিপ বসানো রয়েছে প্রকাশ হওয়ার পরেই ওই প্রক্রিয়া শুরু করে জার্মান গাড়ি প্রস্তুতকারী গোষ্ঠী। #