ডেঙ্গু শনাক্তে ফের রেকর্ড

করোনা মহামারির মধ্যে নতুন আতঙ্ক হিসেবে দেখা দিয়েছে ডেঙ্গু। গত ২৪ ঘণ্টায় এডিস মশাবাহী রোগটিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৩৪৩ জন। এটি চলতি বছরে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গু বিষয়ক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন ৩৪৩ জন। এর মধ্যে ঢাকাতে ২৮৬ জন এবং ঢাকার বাইরে সারাদেশে ৫৭ জন।

এ নিয়ে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ২৮১ জনে। এর মধ্যে ঢাকার ৪১টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে এক হাজার ১৩৩ জন এবং অন্যান্য বিভাগে বর্তমানে ১৪৮ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১ জানুয়ারি থেকে ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সর্বমোট সংখ্যা ১২ হাজার ৪৩৪ জন। একই সময়ে হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১১ হাজার ১০১ জন রোগী।

গত আগস্টের শুরু থেকে প্রতিদিনই দুই শতাধিক মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। সবশেষ ২ সেপ্টেম্বর একদিনে ৩৩০ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন, যা ছিল একদিনে সর্বোচ্চ ভর্তির রেকর্ড। তবে সেই রেকর্ড ভেঙে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু শনাক্তে নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হলো।

এছাড়া চলতি বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মোট হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১২ হাজার ৪৩৪ জন। এর মধ্যে জানুয়ারিতে ৩২ জন, ফেব্রুয়ারিতে ৯, মার্চে ১৩, এপ্রিলে তিন, মে মাসে ৪৩, জুনে ২৭২ এবং জুলাইয়ে দুই হাজার ২৮৬, আগস্টে সাত হাজার ৬৯৮ এবং চলতি মাসের প্রথম সাত দিনে দুই হাজার ৭৮ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর ডেঙ্গু সন্দেহে ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে জুলাই মাসে ১২ জন, আগস্ট ও সেপ্টেম্বরের ৭ তারিখ পর্যন্ত ৪০ জন মারা গেছেন। #