কেশবপুরে শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ইমাম আটক

কেশবপুর প্রতিনিধি ::   যশোরের কেশবপুরে শিশু (৬) শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ইমরান হোসেন নামে  মসজিদের এক ইমামকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে তাকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। এর আগে সন্ধ্যায় তিনি মসজিদের বারান্দায় আরবি পড়ানো শেষে তার এক শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা থানায় মামলা করেছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে ওই ইমামকে আদালতে আনা হয়েছে। এছাড়া শিশুটির জবানবন্দি নিয়েছেন আদালত। আটক ইমরান হোসেন কেশবপুর শহরের ভবানীপুর এলাকার খোরশেদ আলীর ছেলে।

কেশবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন জানান, উপজেলার মধ্যকুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়-সংলগ্ন মসজিদে ইমরান হোসেন(২৪) প্রায় চার বছর ইমামতি করেন। পাশাপাশি শিশুদের আরবি পড়ান। সোমবার সন্ধ্যায় তিনি মসজিদের বারান্দায় আরবি পড়ানো শেষে অন্যদের ছুটি দিয়ে ওই শিশুকে থাকতে বলেন। পরে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন।

শিশুটি বাড়িতে গিয়ে মাকে ঘটনা জানালে এলাকাবাসী ইমামকে আটক করে রাতে পুলিশের হাতে তুলে দেন। ঘটনা উল্লেখ করে শিশুটির বাবা ওই ইমামের বিরুদ্ধে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

তিনি বলেন, আটক ইমরান হোসেনকে মঙ্গলবার দুপুরে যশোর আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। এছাড়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহাদি হাসান শিশুটির জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন। #