কিশোরগঞ্জের হাওরে মৃত যশোরের সাগরের জানাযা সম্পন্ন

এম আলমগীর, ঝিকরগাছা :: কিশোরগঞ্জের হাওরে ঘুরতে যেয়ে নিখোঁজ হওয়ার দুই দিন পর যশোরের সৈয়দ জাহিরুর রহমান ওরফে সাগর (৪৫) এর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত রোববার দুপুর ১২টার দিকে নিকলী উপজেলার ছাতিরচরের হাওরে জেলেদের জালে তাঁর লাশ আটকা পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁর লাশ উদ্ধার করে।

সৈয়দ জাহিরুর রহমান ওরফে সাগর একজন ব্যবসায়ী এবং রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার সৈয়দ হাবিবার রহমানের ছেলে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৯৯৫-৯৬ শিক্ষাবর্ষের লোক প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী সাগরের গ্রামের বাড়ি যশোরের কাজীপাড়া কাঁঠালতলায়। তিনি বন্ধু সংগঠন ঢাকা ইউনিভার্সিটি ফ্রেন্ডস অ্যাল্যায়েন্সের (ডুফা) কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন। এবং ঝিকরগাছা উপজেলার হাজিরবাগ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সাত্তার খাঁন- এর জামাতা।

পারিবারিক সূত্র জানায়, রবিবার কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে জাহিরুরের লাশ ময়নাতদন্তের সম্পন্ন সোমবার তাঁর লাশ ঢাকায় আনার পর বসুন্ধরার ডি ব্লকের সেন্ট্রাল মসজিদে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছেএবং এশাবাদ যশোরের কারবালা জামে মসজিদে চত্ত্বরে দ্বিতীয় জানাজা শেষে তাঁর বাবার কবরের পাশে তাঁকে দাফন করা হয়েছে।

গত শুক্রবার ঢাকা থেকে ডুফার ৫১ জন সদস্য দুটি বাসে কিশোরগঞ্জের হাওরে ঘুরতে এসেছিলেন। বাসে তাঁরা নিকলী নেমে সেখান থেকে ট্রলারে মিঠামইন, মিঠামইনের প্রেসিডেন্ট রিসোর্ট, অষ্টগ্রাম, অলওয়েদার সড়ক ঘোরেন। ঢাকায় ফেরার জন্য সন্ধ্যার দিকে তাঁরা অষ্টগ্রামের ভাতশালা থেকে নিকলীর উদ্দেশে রওনা হন। রাত আটটার দিকে পর্যটক দলের সদস্যরা নিকলীর পুড্ডা বাজারে ট্রলার থেকে নামেন। বাসে উঠে গণনাকালে জাহিরুরের অনুপস্থিতির বিষয়টি সবার নজরে আসে। এরপর থেকে নিকলী থানা–পুলিশের সহায়তায় হাওরের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক উদ্ধার তৎপরতা চালানো হয়। কিন্তু কোনোভাবেই সাগরের সন্ধান মিলছিল না। রোববার তৃতীয় দিনের মতো জাহিরুরের সন্ধানে উদ্ধার তৎপরতা পরিচালনা করা হয়। একপর্যায়ে রবিবার দুপুর ১২টার দিকে নিকলী উপজেলার ছাতিরচরের হাওরে জেলেদের জালে তাঁর লাশ আটকা পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁর লাশ উদ্ধার করে।
যশোরের কারবালা জামে মসজিদে চত্ত্বরে দ্বিতীয় জানাজা সৈয়দ জাহিরুর রহমান ওরফে সাগরের জানাজা নামাজে অংশ নেন যশোর-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মনিরুল ইসলাম মনির সহ এলাকার বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ। #