কালিয়ায় কৃষক লীগ নেতাকে গুলি

নড়াইল প্রতিনিধি :: নড়াইলের কালিয়া উপজেলার পুরুলিয়া ইউনিয়ন কৃষক লীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম খানকে (৪৮) গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাকে প্রথমে নড়াইল সদর হাসপাতাল পরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কালিয়া উপজেলার পুরুলিয়া ইউনিয়নের চন্দ্রপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নজরুল ইসলাম চন্দ্রপুর গ্রামের মৃত মনজুর আলী খানের ছেলে।
আহতের ভাই কালিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এমদাদুল হক খান জানান, সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে নজরুল ইসলাম তার বাড়ির সামনে রাস্তায় দাড়িয়ে ছিলেন। এ সময় দুইটি মোটরসাইকেল যোগে চারজন যুবক তাকে দেখে শর্টগান দিয়ে গুলি করে। গুলিটি নজরুল ইসলামের মুখের বামপাশের চোয়ালে লাগে। এলাকার মানুষ গুলির শব্দ শুনে এগিয়ে আসলে মোটরসাইকেলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। আহত অবস্থায় নজরুল ইসলামকে প্রথমে নড়াইল সদর হাসপাতালে পরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
তবে এলাকার গণমাধ্যমকর্মীসহ সূত্রে জানাগেছে, গুলিবিদ্ধ নজরুল ইসলাম তার ব্যক্তিগত ইয়ারগানটি বিক্রি করতে চেয়েছিলেন। একটি মোটর সাইকেল যোগে তিনজন ব্যক্তি ইয়ারগানটি কেনার জন্য নজরুল ইসলামের বাড়ির সামনের রাস্তায় যান। সে সময় ক্রেতাদের সাথে দামাদামি নিয়ে বাকবিতন্ডতার এক পর্যায়ে ইয়ারগান দিয়ে নজরুলকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে এবং ইয়ারগানটি নিয়ে পালিয়ে যায়। গুলিটি বামপাশের চোয়ালে বিদ্ধ হয়।
সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের মেডিকেল অফিসার প্রবীর কুমার বিশ্বাস জানান, সন্ধ্যা ৭টা ৪০ মিনিটের দিকে নজরুল ইসলাম খান গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে আসলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। যেহেতু মুখে গুলি লেগেছে সে কারনে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাপসাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।
কালিয়া থানার ওসি কনি মিয়া গুলির কথা স্বীকার করে বলেন, ‘কে বা কারা কেন গুলি করেছে তা তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। #