কলারোয়ায় দুই শিশু সন্তানসহ মার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি :: সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার লাঙলঝাড়া গ্রামে একই কক্ষ থেকে মায়ের ঝুলন্ত লাশ ও তার দুই শিশু সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে কোন এক সময়ে এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার সকালে ঘরের দরজা বন্ধ দেখে বাড়ির লোকজনের সন্দেহ হয়। পরে দরজা ভেঙে লাশ তিনটি উদ্ধার করে পুলিশ।
সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ঝুলন্ত গৃহবধূর নাম মাহফুজা খাতুন। তার দুই মৃত শিশুর নাম মাহফুজ(৯) ও মোহনা(৫)। মাহফুজা খাতুন গলায় শাড়ি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। এর আগে তিনি তার দুই সন্তানকে গলা টিপে হত্যা করেন বলেও স্থানীয়রা ধারনা করা হচ্ছে। এ ঘটনার পর উৎসুক গ্রামবাসী ওই বাড়িতে ভিড় করছে। লাশ তিনটি উদ্ধার করে (দুপুরে) সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। স্বামী শিমুলকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে। ময়না তদন্ত শেষে মৃত্যুও কারণ বোঝা যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম জানান, লাঙলঝাড়া গ্রামের ট্রাক্টর চালক শিমুল বিল্লাহর স্ত্রী মাহফুজা খাতুনের(৩৫) শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে স্থানীয় এক যুবক। এ ঘটনায় তিনি অপমানিত বোধ করে পরিবারের সদস্যদের মাধ্যমে বিষয়টি স্থানীয় লাঙলঝাড়া ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামকে জানান। কিন্তু তিনি সেই সালিশ আহবান করতে দেরী করে ফেলেন। সময়ক্ষেপনে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন মাহফুজা খাতুন। সকালে তাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। #