করোনা ছড়াবার দায়ে ৫ বছর জেল

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ ভিয়েতনামে এক ব্যক্তিকে করোনাবিধি ভঙ্গ ও করোনা ছড়ানোর অপরাধে ৫ বছরের জেল দেয়া হয়েছে। দেশটির একটি আদালত লি ভ্যান ট্রি নামের ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে আটজনের শরীরে এই ‘বিপজ্জনক সংক্রামক রোগ’ ছড়ানোর প্রমাণ পেয়েছেন। যার মধ্যে একজন মারা গেছেন। সূত্র: বিবিসি।

সম্প্রতি ভিয়েতনামে করোনার প্রকোপ কিছুটা বাড়লেও আগে তারা কঠোর নিয়ম বাস্তবায়ন করে এই মারণভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছিল। গত জুন থেকে সংক্রমণ বেড়ে যায়। করোনার সবচেয়ে মারাত্মক ধরন ডেল্টার আক্রমণের ফলে দেশটিতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে এই ভাইরাস।

ভিয়েতনামে এখন পর্যন্ত প্রায় ৫ লাখ ৩০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্যে মারা গেছেন ১৩ হাজার ৩০০ জন। গত কয়েক মাসেই আক্রান্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে দেশটিতে। করোনায় বেশি আক্রান্ত হচ্ছে হো চি মিন শহরের মানুষ।

গত জুলাই মাসের শুরুর দিকে ট্রি (২৮) হো চি মিন শহর থেকে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে অবস্থিত তার নিজ প্রদেশ কা মাউতে মোটরসাইকেলে করে গিয়েছিলেন। কা মাউতে গিয়ে ট্রি হেলথ ডিক্লারেশন ফরমে মিথ্যা তথ্য দেন। ওই ফরমে তার ভ্রমণ বিষয়ে তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছিল। এছাড়া তিনি আইসোলেশন নিয়ম মানেননি।

ওই সময় কা কাউ প্রদেশ কর্তৃপক্ষ নিয়ম করেছিল যে, বাইরের কোনো প্রদেশ থেকে কা মাউতে ঢুকলে তাকে অবশ্যই ২১ দিন আইসোলেশনে থাকতে হবে।

পরে ট্রির শরীরে করোনা ধরা পড়ে। দেখা যায়, তিনি তার পরিবারের অন্য সদস্যদের মধ্যে এই ভাইরাস ছড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি একটি ওয়েলফেয়ার সেন্টারে গিয়েছিলেন। সেখানকার একজন স্টাফও এই ভাইরাসে আক্রান্ত হন।

একদিনের বিচার শেষে ট্রিকে কারাদণ্ড দেয়া হয়। এছাড়া তাকে ৮৮০ ডলার জরিমানা করা হয়েছে।