আফগানদের কাছে ক্ষমা চাইলেন আশরাফ গনি

গত ১৫ আগস্ট তালেবান আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখল করে নেয়ার পর দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান সে সময় দেশটির প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে থাকা আশরাফ গনি। গতকাল (বুধবার) টুইটারে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে তিনি আফগানদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। তিনি বলেছেন, আফগানদের ছেড়ে যাওয়ার ইচ্ছা তার ছিল না। পরিস্থিতি তাকে বাধ্য করে। তিনি আফগানিস্তানের মানুষের নিরাপত্তা রক্ষা করার জন্য দেশ ছেড়েছিলেন।

খবর বেরিয়েছিল যে, আশরাফ গনি দেশ ছাড়ার সময় বহু টাকা নিয়ে গিয়েছিলেন। তিনি এত টাকা নিয়ে যান যে বিমানে না ধরায় বহু টাকা তিনি বিমানবন্দরে রেখে যান। কিন্তু আশরাফ গনি এই অভিযোগ মিথ্যা বলে উল্লেখ করেছিলেন। এদিন বিবৃতিতেও তিনি আবার বলেছেন যে, টাকা নিয়ে দেশ ছাড়ার বিষয়টি মিথ্যা। বিষয়টি প্রমাণ করার জন্য যতি তদন্তের প্রয়োজন হয় তাহলে তিনি প্রস্তুত।

আশরাফ গনি বলেছেন, ‘কাবুল ছাড়ার সিদ্ধান্তটি আমার জীবনের সবচেয়ে কঠিন সিদ্ধান্ত। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি, বন্দুক থামানোর জন্য, কাবুলকে রক্ষা করার জন্য, সর্বোপরি আফগানিস্তানের ৬ মিলিয়ন মানুষকে রক্ষার করার জন্য এটিই ছিল সবচেয়ে বড় উপায়।’

আশরাফ গনির টাকা নিয়ে দেশ ছাড়ার বিষয়ে প্রথমে অভিযোগ তুলেছিলেন তাজিকিস্তানে নিযুক্ত আফগানিস্তানের রাষ্ট্রদূত জহির আকবর। তিনি অভিযোগ করেন যে, গনি ১৬৯ মিলিয়ন ডলার নিয়ে দেশ ছাড়েন।

আশরাফ গনি বর্তমানে রয়েছেন আবু ধাবিতে। তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন যে, পূর্বসূরীদের মতো তিনিও যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটিতে শান্তি ও সমৃদ্ধি আনতে ব্যর্থ হয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এটি গভীর অনুশোচনার বিষয় যে, আমার অধ্যায়ও পূর্বসূরীদের মতো একই ট্রাজেডির মাধ্যমে সমাপ্ত হয়েছে। আমি আফগানিস্তানের সকল মানুষের কাছে ক্ষমা চাই। আমি অন্যভাবে শেষ করতে পারিনি।’